"যদি ৫০০০ মানুষ প্রাণ দিতে প্রস্তুত থাকে তাহলে আমি বাংলাদেশকে স্বাধীন করতে পারবো" - বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

পেট্রল ঢেলে জ্বালিয়ে দেয়া হল পাঁচ থেকে ছয়শ মৃতদেহ

২৭ মার্চ, বিকেল ৪.৩-৫ টা। রংপুর সেনানিবাস। দক্ষিণ দিক থেকে কয়েক হাজার মানুষ ধীর গতিতে সার বেঁধে এগিয়ে আসছে সেনাছাউনির দিকে। তাদের প্রায় প্রত্যেকের হাতেই দা-কাচি বর্শা বল্লমের মতো অতি সাধারণ অস্ত্রপাতি। সামন্ত যুগের অস্ত্রপাতি নিয়েই তারা আধুনিক স্বয়ংক্রিয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত ট্যাংক ঘাঁটিতে হামলা চালাবার আয়োজন করেছে। জানা যায়, স্থানীয় আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

হায় গো, ব্যাথায় কথা যায় ডুবে যায়, যায় গো

১৮ অক্টোবর সালদা নদীতে ৪র্থ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের ‘সি’ কোম্পানির প্রতিরক্ষা অবস্থানের উপর আক্রমণ চালায় ৩৩ বেলুচ রেজিমেন্ট। সাহস এবং দক্ষতার সঙ্গে সে আক্রমণ ব্যর্থ করে দেয় আমাদের ছেলেরা। বহু লাশ গুনতে হয় ৩৩ বেলুচকে। ১৯ অক্টোবর ৩৩ বেলুচ আবারও গতদিনের ব্যর্থতার প্রতিশোধ নিতে আক্রমণ করে। আক্রমণে আমাদের বেশ হতাহত আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

যে ঘৃণার কোনো শেষ নেই

পাকিস্তানি এক প্লাটুন সৈন্য ও এক প্লাটুন রাজাকার ছিল আত্রাই নদীর অপর পাড়ে প্রতিরক্ষা অবস্থানে। দেড়শ গণযোদ্ধার একটি দল নিয়ে শত্রুর উপর আক্রমণ চালাল কমান্ডার এটিএম হামিদুল হোসেন ( তারেক )। সময় ৮ নভেম্বর, প্রত্যুষ। শত্রু প্রথম ফায়ার শুরু করল একটি এলএমজি দিয়ে। তারপর শুরু হল গুলি বৃষ্টি। কিন্তু কয়েক আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

ভেড়ামারা, মিরপুর ও দৌলতপুর থানায় আবিষ্কৃত গণকবর

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম পাদপীঠ হিসেবে পরিচিত কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা, মিরপুর ও দৌলতপুর থানায় আবিষ্কৃত গণকবরগুলো মধ্যে রয়েছে- ১. ভেড়ামারা থানার ধরমপুর ইউনিয়নের সাতবাড়িয়া মাড়োয়ারি বাড়ির মোটর গ্যারেজ ও পুকুরপাড় সংলগ্ন গণকবর। পাকবাহিনী এখানে স্থাপন করে বাঙালি নির্যাতন ও নিধন ক্যাম্প। দীর্ঘ নয় মাসে এখানে শত শত নিরপরাধ মুক্তিযোদ্ধা ও বাঙালিকে হত্যা আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

( ১৯৭০-এর নির্বাচন ) গোপন খসড়া সংবিধানের কিছু অংশ ফাঁস, মুজিবের সন্দেহ মোশতাকের উপর

১৯৭০ সালের নির্বাচনে বিপুল বিজয়ের পর আওয়ামী লীগের সামনে প্রধান চ্যালেঞ্জ ছিল ছয় দফার ভিত্তিতে একটি কার্যকর সংবিধান তৈরী করা। সংবিধান তৈরির জন্য বিশেষজ্ঞের দরকার ছিল। মুজিব একাজে ডঃ নুরুল ইসলাম, অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ, অধ্যাপক খান সরোয়ার মুরশিদ, অধ্যাপক আনিসুর রহমান, ডঃ কামাল হোসেন ও অধ্যাপক রেহমান সোবহানকে দায়িত্ব দিলেন। আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

নবজাতকের নাম রাখা হল পিটার উইলিয়াম মুজিব

লন্ডনের বাসিন্দা পল কনেট ছিলেন একজন মানবাধিকার কর্মী। একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য খাদ্য ও ঔষুধ সংগ্রহ এবং সেগুলো প্রেরণের জন্য ‘অপারেশন ওমেগা’ নাম একটি সংস্থা প্রতিষ্ঠা করেন লন্ডনে। এছাড়াও পাকিস্তান সরকারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ ও বাংলাদেশকে স্বীকৃতি প্রদানের আবেদন জানিয়ে লন্ডনের ট্রাফালগার স্কয়ারে ১ আগস্ট এক বিশাল জনসভা আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

বাঙালিদের জন্য ছবি চুরি করেছিলেন বেলজিয়ামের এক যুবক

মুক্তিযুদ্ধের সময় বিভিন্ন দেশের নাগরিক সমাজ বাঙালিদের সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন। সারা বিশ্বের বিভিন্ন নাগরিক সমাজ বাঙালিদের প্রতি ছিল সমব্যাথী যা আগে কোনও দেশের স্বাধীনতার জন্য হয়েছে কিনা সন্দেহ। তারই কিছু ঘটনা নিম্নে তুলে ধরা হলো: ১. যুক্তরাষ্ট্র সরকার ছিল পাকিস্তানের পক্ষে। কিন্তু সে দেশের নাগরিকরা বাঙালিদের সমর্থন করে সরকারের উপর আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

বাংলা ভাষার ব্যবহার নিয়ে প্রথম প্রতিক্রিয়া

পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার পূর্বে এবং পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার পর বাংলা ভাষার দাবি ঘিরে বাঙালি মুসলমানের শিক্ষিত সচেতন অংশ শুরু থেকেই লড়াই করে এসেছেন। কিন্তু লড়াইটা ছিল প্রধানত সাহিত্য-সংস্কৃতি এবং পত্র-প্রত্রিকায় প্রবন্ধাদি প্রকাশের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার আড়াই মাসের মধ্যে (১৯৪৭ সালের নভেম্বর মাসের প্রথম দিকে ) বাংলা ভাষার বাস্তব প্রয়োগের বিষয় নিয়ে আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

ভাষা আন্দোলনের সূচনা মূল আন্দোলন শুরু হওয়ার কয়েক দশক আগেই

ভাষা আন্দোলন বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনা নয়। ভিন্ন চেহারায় হলেও এর সূচনা মূল আন্দোলন শুরু হওয়ার কয়েক দশক আগেই। বাংলার মাটিতে মুসলমানের ঘরে উর্দুকে প্রতিষ্ঠার ষড়যন্ত্র পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার আগেই শুরু হয়েছিল। একদা বাঙালি মুসলমানের শিক্ষিত একাংশ বাংলাকে মাতৃভাষারূপে মেনে নিতে রাজি ছিলেন না। উর্দুকে তারা চেয়েছেন মাতৃভাষা ও জাতীয় ভাষারূপে এবং আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

বাংলা ভাষা হিন্দু সংস্কৃতির ধারক ও বাহক

১৯৪৮ সালের ১৯শে মার্চ পাকিস্তানের জাতির জনক কায়েদে আজম মহম্মদ আলি জিন্না ঢাকায় এলেন। ২৪শে মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন উৎসবে ভাষণ দিতে এসে বললেন, “প্রিয় ছাত্রগণ আমি তোমাদের জানাতে চায় যে পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা একমাত্র উর্দুই হবে। এ ভাষার মারফত ইসলামের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য যেমন প্রকাশ পেয়েছে অন্য কোনো ভাষায় তা আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

উৎসর্গ

রাজশাহীর রোহনপুরের সেই অজ্ঞাত কিশোর যে পাকবাহিনীর শত অত্যাচারেও সহযোদ্ধাদের নাম প্রকাশ করেনি বরং স্বদেশের মাটি চুম্বন করে দৃপ্ত কণ্ঠে বলেছিল, আমি প্রস্তুত! চালাও গুলি! আমার প্রতিটি রক্তবিন্দু আমার পবিত্র ভূমির মুক্তিকে ত্বরানিত্ব করবে।

অনুরোধনামা

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং মুক্তিযোদ্ধাদের সম্বন্ধে জানা আপনার মূল্যবান তথ্যগুলো আমাদের সাথে শেয়ার করুন।

যোগাযোগ :
মোবাইল: ০১৭১২৪৮৮৬৫১
মুবাকতাকি রহম চাঁদ ( সম্বর )
ধন্যবাদ



———————X———————-

———————X———————-

———————X———————-

———————X———————-