"যদি ৫০০০ মানুষ প্রাণ দিতে প্রস্তুত থাকে তাহলে আমি বাংলাদেশকে স্বাধীন করতে পারবো" - বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

নারী মুক্তিযোদ্ধা ১০: ছায়ারুন নেছা

ছায়ারুন নেছার বাড়িতে মুক্তিবাহিনীর ক্যাম্প ছিল। অনেক মুক্তিযোদ্ধা ছায়ারুন নেছার বাড়িতে থাকতেন। যুদ্ধের পাশাপাশি রান্না করে খাওয়ানোরও দায়িত্ব ছিল তাঁর। তখন গ্রামের কোথাও ঢেঁকি ছিল না। সেজন্য গাইল-ছিয়া ( হামানদিস্তা ) দিয়ে ধান ভাঙিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের খাওয়াতেন। ছায়ারুন নেছার স্বামী ভারতের আর্মিদেরকেও বাড়িতে থাকতে দিতেন। এভাবে মুক্তিযোদ্ধাদের সাহায্য করতে গিয়ে টাকার আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

নারী মুক্তিযোদ্ধা ৯ : শরিফুন্নেসা

কেরানীগঞ্জের একমাত্র নারী মুক্তিযোদ্ধা শরিফুন্নেসা। বাবা মোবারক হোসেন ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা। ভারত থেকেই আগেই প্রশিক্ষণ নিয়ে এসেছিলেন। তাঁর বাড়িতে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হত। বাড়িতে তিনটি সেমিপাকা টিনশেড ঘর ছিল। একটিতে মা-বাবা ও ভাইবোনরা গাদাগাদি করে থাকতেন। অন্য তিনটি ঘরে মুক্তিযোদ্ধারা থাকতেন। তাঁর মা মুক্তিযোদ্ধাদের রান্না করে খাওয়াতেন। আর বাড়ির পেছনে চলত আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

নারী মুক্তিযোদ্ধা – ৮: কাঁকন বিবি ( বীরপ্রতীক)

ভারতের খাসিয়ার নথরাই পাহাড়ে ছিল তাঁর বাড়ি। বাবার নাম গিসো খাসিয়া ও মা মেলি খাসিয়া। স্বাধীনতার আগে এক মুসলমানকে বিয়ে করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। নাম হয় নূরজাহান। স্বামী মজিদ খান ছিলেন ইপিআর -এর সৈনিক। মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে ভারতের নথরাই থেকে দোয়ারাবাজারে আসেন স্বামীর খোঁজে। কিন্তু স্বামীর দেখা মেলেনি। তখন আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

নারী মুক্তিযুদ্ধ – ৭ : আশালতা বৈদ্য

একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে রাজাকাররা আশালতার বাবা হরিপদ বাবুর নিকট ছয় লক্ষ টাকা দাবি করে। না দিলে আশালতা ও তাঁর বোনকে তুলে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দেয়। হরিপদ বাবু আশালতাদের নিয়ে ভারতে চলে যাওয়ার চিন্তা করতে থাকেন। এ ঘটনা হেমায়েত বাহিনীর প্রধান হেমায়েত উদ্দিন জানতে পেরে আশালতাকে মুক্তিযুদ্ধে যোগদানের প্রস্তাব দেন। আশালতার আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

নারী মুক্তিযোদ্ধা – ৬ : করুণা বেগম

করুণা বেগম বরিশাল জেলার মূলাদি থানার কুতুবউদ্দিনের নেতৃত্বে প্রশিক্ষণ নেন এবং কুতুব বাহিনীতে যোগ দেন। এই বাহিনীর সাথে তিনি ছাড়া আরো ৫০জন নারী মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। রাইফেল, স্টেনগান, গ্রেনেড ছোড়ার প্রশিক্ষণসহ যে কোন ধরণের বিস্ফোরক ব্যবহার সম্পর্কেও বিশেষ প্রশিক্ষণ লাভ করেন। গেরিলা হিসেবে কখনো ভিক্ষুক, কখনো বা গ্রামের কুলবধূ বেশে শত্রু-শিবির আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

নারী মুক্তিযোদ্ধা- ৫: মির্জা হেলেন করিম

বদরুন্নেছা কলেজের ছাত্রী হেলেন করিম ছাত্র ইউনিয়নের সাথে সক্রিয়ভাবে কাজ করতেন। ১৯৭১ সালে টাঙ্গাইলে যুদ্ধের জন্য স্বেচ্ছাসেবী দল তৈরির ডাক আসলে তিনি ঢাকা থেকে টাঙ্গাইলে চলে আসেন। তিন মাসের পুত্র সন্তানকে বাড়িতে রেখে মুক্তিযুদ্ধের জন্য গয়লাহোসেন চরে এপ্রিলের শেষের দিকে অস্ত্র চালনা প্রশিক্ষণ নেন। সেখানে ছেলেদের পাশাপাশি পাঁচজন মেয়ে প্রশিক্ষণ আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

নারী মুক্তিযোদ্ধা- ৪ : হালিমা খাতুন

পারিবারিকভাবেই হালিমা খাতুন রাজনৈতিক সচেতন ছিলেন। স্কুল জীবনে তিনি ছাত্র রাজনীতিতে যুক্ত ছিলেন।জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার ডাক দিলে গ্রামের তরুণ,ছাত্র,জনতা মুক্তি যুদ্ধের জন্য স্থানীয় সংগঠন গড়ে তোলেন।সেই সংগঠনের শুরু থেকেই সক্রিয়ভাবে কাজ করতে থাকেন হালিমা বেগম।তার মামার বাড়িতেই ছিল মুক্তিযোদ্ধাদের ঘাঁটি।ফলে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে যুদ্ধের প্রশিক্ষণ নেন তিনি। আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

নারী মুক্তিযোদ্ধা- ৩ : আমিনা বেগম

১৯৭১ সালের উত্তাল মার্চের ১৪ তারিখ তৎকালীন সর্বদলীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক বকুলের সাথে বিয়ে হয় আমিনার।কিন্তু বিয়ের মাত্র গা দিনের মাথায় স্বামীর সাথে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন তিনি।এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “বলতে গেলে সে সময় দেশের পরিস্থিতিই আমাকে মুক্তিযুদ্ধে জড়িয়ে নেয়। আর আমার স্বামী এ সময়ই মুক্তিযুদ্ধের আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

নারী মুক্তিযোদ্ধা- ২ : অঞ্জলি রায় গুপ্তা

১৯৭১ সালে যখন স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু হয়, তখন ঝালকাঠির শিরযুগ আজিমুন্নেছা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে কর্মরত ছিলেন অঞ্জলি রায়। বিভিন্ন এলাকার মুক্তিকামী মানুষ কীর্তিপাশা স্কুলমাঠে আসত যুদ্ধের প্রশিক্ষণ নিতে।একাত্তেরে ২৫ মার্চের পর প্রশিক্ষণ আরো জোরদার হয়।প্রশিক্ষণ শিবিরের পাশেই তাঁদের বাড়িতে মুক্তিযোদ্ধের খাবারের ব্যবস্থা করা হতো। এভাবে বিভিন্ন এলাকা আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

নারী মুক্তিযোদ্ধা -১ : অধ্যাপিকা জিনাতুন নেসা তালুকদার

১৯৭১ সালের অসহযোগ আন্দোলনের উত্তাল দিনগুলোতে জিনাতুন নেসা তালুকদারের ভূমিকার জন্য সরকারের খাতায় রাষ্ট্রবিরোধী কার্যকলাপের জন্য চিহ্নিত হয়ে যান।মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে দেশমাতৃকার ডাকে সাড়া দিয়ে সরাসরি মুক্তি সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েন।ভারতে গিয়ে সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর অধীনে মহেন্দ্র রায় লেনের বিখ্যাত গোবরা ক্যাম্পে কাজ শুরু করেন।সেখানে অস্ত্র পরিচালনা ও চিকিৎসাসেবাদানের প্রশিক্ষণ নেন।প্রশিক্ষণ আরো পড়ুন»
Mubaktaqi Raham Chand

  171 Posts

 sombororbund@gmail.com

  http://bbondhu.com/

উৎসর্গ

রাজশাহীর রোহনপুরের সেই অজ্ঞাত কিশোর যে পাকবাহিনীর শত অত্যাচারেও সহযোদ্ধাদের নাম প্রকাশ করেনি বরং স্বদেশের মাটি চুম্বন করে দৃপ্ত কণ্ঠে বলেছিল, আমি প্রস্তুত! চালাও গুলি! আমার প্রতিটি রক্তবিন্দু আমার পবিত্র ভূমির মুক্তিকে ত্বরানিত্ব করবে।

অনুরোধনামা

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং মুক্তিযোদ্ধাদের সম্বন্ধে জানা আপনার মূল্যবান তথ্যগুলো আমাদের সাথে শেয়ার করুন।

যোগাযোগ :
মোবাইল: ০১৭১২৪৮৮৬৫১
মুবাকতাকি রহম চাঁদ ( সম্বর )
ধন্যবাদ



———————X———————-

———————X———————-

———————X———————-

———————X———————-